Birthday Gift Ideasউপহারগিফট

জন্মদিনের উপহার বা গিফট আইটেম এর আইডিয়া | Birthday Gift Ideas

প্রিয়জনের জন্মদিনে আমরা সকলেই চাই তাকে খুশী করতে, তার কাছে দিনটিকে স্মরণীয় করে রাখতে। সকলেই চাই আমার উপহারটি যেন খুব চমকপ্রদ হয়, আবার প্রিয়জন ও হয়ত আমাদের থেকে এমনটাই আশা করে থাকে। কিন্তু জন্মদিন উপলক্ষ্যে প্রিয়জনকে ঠিক কি উপহার দেওয়া যায়, তা অনেকেই স্বল্প সময়ে ভেবে পান না। তাই আজকের এ লেখাটিতে রয়েছে আপনার প্রিয়জনের জন্য জন্মদিনে আপনি যা উপহার দিতে পারেন তার কিছু অসাধারন আইডিয়া। 

Table of Contents

মায়ের জন্মদিনের উপহার

১. নতুন শাড়ি

মায়ের জন্মদিনের উপহার: নতুন শাড়ি

নারীদের জন্য শাড়ি সবসময়ই একটি আকর্ষণীয় উপহার। মায়ের জন্মদিনে তাকে সুন্দর ও ভালোমানের শাড়ি উপহার দিতে পারেন। তবে শাড়ি নির্বাচনের ক্ষেত্রে আপনার মা কি ধরনের শাড়ি পছন্দ করেন, কি রং পছন্দ করেন এসব বিষয় বিবেচনায় রাখবেন। চাইলে মায়ের পছন্দে মাকে নিয়েই শাড়ি কিনতে পারেন। সন্তানের থেকে পাওয়া শাড়ি সকল মায়ের জন্যই খুবই প্রিয় হয়ে থাকে।

২. বই

মায়ের জন্মদিনের উপহার: বই

আপনার মা যদি বইপ্রেমিক বা সাহিত্যপ্রেমিক হয়ে থাকে তবে তার জন্য একটি অসাধারন উপহার হতে পারে বই। এটি তার অবসর সময় কাটাতে অনেক বেশি সাহায্য করবে। আপনার মা যেধরনের বই পছন্দ করেন, যে লেখকের বই পছন্দ করেন এসব বিবেচনা করেই বই ক্রয় করবেন৷ তা হতে পারে কোন ধর্মীয় বই, কবিতার বই কিংবা মায়ের প্রিয় লেখকের কোন উপন্যাস।

৩. হাতে বানানো পার্স

মায়ের জন্মদিনের উপহার: হাতে বানানো পার্স

মায়ের জন্মদিনে তার জন্য একটি পার্স উপহার দিতে পারেন। এটি কোথাও যাওয়ার সময় তার প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র বহনে সাহায্য করবে। বর্তমানে বিভিন্নি বাহারী ডিজাইনের পার্স পাওয়া যায়। হাতে ডিজাইন আঁকা ও বানানো পার্স দেখতে আরো বেশি আকর্ষণীয় হয়। এরকম কোন পার্স আপনার মায়ের জন্য বেশ উপকারী ও আকর্ষণীয় একটি উপহার হবে।

৪. চশমার ফ্রেম

মায়ের জন্মদিনের উপহার: চশমার ফ্রেম

জন্মদিন উপলক্ষ্যে আপনার মায়ের পুরাতন চশমার ফ্রেমটি বদলে নতুন চশমার ফ্রেম উপহার দিতে পারেন। চশমা নিত্যদিন ব্যবহার করতে হয়, যা আপনার উপহার এর কথা বারবার স্মরণ করাবে এবং মা অনেক খুশী হবেন। চশমার ফ্রেম নির্বাচনে মায়ের বয়স ও কিরকম ফ্রেম পছন্দ করেন তা বিবেচনায় রাখুন।

৫. গাছ

মায়ের জন্মদিনের উপহার: গাছ

গাছ দারুন একটি উপহার যা ঘরের সৌন্দর্য বৃদ্ধি করে থাকে। মায়ের রুম সংলগ্ন বারান্দাটিতে কয়েকটি গাছের টব লাগিয়ে বাগানের মতো সাজিয়ে দিতে পারেন। এতে বিভিন্ন ফুলের গাছ থাকলে তা ঘরকে সুরভিত করে রাখবে। সবচেয়ে ভালো হবে আপনার মায়ের প্রিয় ফুল এর গাছ যদি উপহার হিসেবে দিতে পারেন। 

বাবার জন্মদিনের উপহার

১. ফাউন্টেন পেন

বাবার জন্মদিনের উপহার: ফাউন্টেন পেন

বাবার জন্মদিনে উপহার হিসেবে ফাউন্টেন পেন বেশ দারুন উপহার হতে পারে। এখন ফাউন্টেনপেন অত ব্যবহার হয়না, কিন্তু বাবার ছোটবেলায় বা যৌবনকালে ফাউন্টেনপেনের ভালো চল ছিলো। এটি তাকে তার জীবনের পুরনো সময়ের কথা যেমন স্মরণ করাবে, তেমনি লেখালেখিতেও সাহায্য করবে। ফাউন্টেনপেন এখন অফিস সহ বেশ কিছু জায়গায় আভিজাত্যের প্রতীক হিসেবে ব্যবহার হচ্ছে। তাই ফাউন্টেন পেন উপহার হিসেবে পেলে তা বাবার জন্মদিনের আকর্ষণীয় এক উপহার হতে পারে।

২. পাঞ্জাবি

বাবার জন্মদিনের উপহার: পাঞ্জাবি

বাবার জন্য ভালোমানের একটি পাঞ্জাবি হতে পারে আদর্শ এক উপহার। খুব বেশি চকচকে বা জটিল ডিজাইনের নয়, সিম্পল ও সুন্দর রঙের পাঞ্জাবিই বাবার জন্য ভালো হবে। এক্ষেত্রে বাবার কি রঙের পাঞ্জাবি পছন্দ তা বিবেচনায় রাখতে হবে। কোথাও বেড়াতে যাওয়া সহ সবসময় ব্যবহার করা হবে এমন আরামদায়ক কাপড়ের সুতির ভালো পাঞ্জাবি সকল বাবারই পছন্দ হওয়ার কথা।

৩. আতরের সেট / পারফিউম

বাবার জন্মদিনের উপহার: আতরের সেট / পারফিউম

বাবার জন্য জন্মদিনের উপহার হিসেবে সুগন্ধি খুব ভালো একটি অপশন। যেকোন বাবাই এ উপহার পছন্দ করবেন৷৷ বাবার পছন্দ অনুযায়ী কোন ভালোমানের পারফিউম উপহার দিতে পারেন। কিছু পারফিউমে অ্যালকোহল থাকায় অনেকে পারফিউম পছন্দ করেন না, তাদের জন্য সুগন্ধি হিসেবে আতরের সেট ভালো উপহার হবে। বেশ কিছু ভালো ব্র‍্যান্ডের আতর আছে যারা ফুলের নির্যাস থেকে একদম হালাল উপায়ে আতর তৈরি করে থাকে। এছাড়া চাইলে বিদেশ থেকেও অনলাইনে অর্ডার দিয়ে বিদেশী ব্র‍্যান্ডের পারফিউম বা আতরের সেট কিনে উপহার হিসেবে দিতে পারেন।

৪. কাশ্মীরি শাল

বাবার জন্মদিনের উপহার: কাশ্মীরি শাল

বাবার জন্মদিন যদি শীতকালে হয়ে থাকে, তবে তার জন্য আদর্শ উপহার হতে পারে বাহারী নকশার কাশ্মীরি শাল। এটি বেশ অভিজাত ছোঁয়া দেয় এবং শীতকালের জন্য বেশ আরামদায়ক ও। উপহার হিসেবে বেশি ভারী শালের তুলনায় কিছুটা নরম ও হালকা শাল বেশি উপযোগী হবে, এর ফলে শীতকাল এর কনকনে শীত ছাড়াও হেমন্তের মৃদ্যু শীত ও বসন্তের শুরুতেও এই শাল পরতে পারবেন। সাধারনত বিয়ের অনুষ্ঠান বা অন্যান্য অনুষ্ঠান এইদেশে শীতকালেই আয়োজন করা হয়, সেসব অনুষ্ঠানে যেতে বাবা এই কাশ্মীরি শাল পরিধান করতে পারবেন। তাই কাশ্মীরি শাল উপহার হিসেবে পেলে বাবা বেশ খুশী হবেন।

ভাইয়ের জন্মদিনের উপহার

১. ট্যুর ব্যাগ

ভাইয়ের জন্মদিনের উপহার: ট্যুর ব্যাগ

আপনার ভাইয়ের জন্মদিনের শুভেচ্ছার পাশাপাশি তার জন্য দারুন একটি উপহার হতে পারে ট্যুর ব্যাগ। সে কোন জায়গায় ট্যুরে গেলে বা এমনিই কোথাও ট্র‍্যাভেল করতে গেলে জিনিসপত্র বহন করতে একটি ভালো ব্যাগের দরকার হয়৷ আপনি একটি ভালোমানের টেকসই একটি ট্যুর ব্যাগ তাকে জন্মদিনের উপহার হিসেবে দিতে পারেন। আপনার ভাই যদি ভ্রমণপ্রিয় হয়ে থাকেন তবে তার জন্য এটিই হবে সবচেয়ে উপকারী ও আকর্ষণীয় উপহার।  

২. স্মার্টওয়াচ

ভাইয়ের জন্মদিনের উপহার: স্মার্টওয়াচ

আপনার ভাইয়ের জন্মদিনে আকর্ষনীয় একটি উপহার হবে স্মার্টওয়াচ। বর্তমান যুগে স্মার্টওয়াচের ব্যবহার ব্যাপক বৃদ্ধি পেয়েছে৷ এটি যেমন বেশ বিভিন্ন কাজের কার্যকরী একটি ডিভাইস তেমনি হাল ফ্যাশনের ট্রেন্ড ও। তাই আপনার ভাইকে তার জন্মদিনে একটি স্মার্টওয়াচ কিনে গিফট করলে সে খুবই খুশী হবে। 

৩. ওয়ালেট

ভাইয়ের জন্মদিনের উপহার: ওয়ালেট

ওয়ালেট বা মানিব্যাগ আপনার ভাইয়ের জন্য জন্মদিনে একটি স্টান্ডার্ড গিফট হবে। দেশি-বিদেশি বিভিন্ন নামীদামী ব্র‍্যান্ডের ওয়ালেট রয়েছে। আপনার ভাইয়ের রুচির সাথে মিলে এরকম ডিজাইনের টেকসই হবে এরকম চামড়ার মানিব্যাগ আদর্শ এক উপহার হতে পারে। ওয়ালেট ছেলেদের নিত্যব্যবহার্য একটি জিনিস, তাই এ উপহার লাভ করে আপনার ভাই যেমন খুশী হবে তেমনি তার বেশ কাজেও লাগবে।

৪. শেভিং কিট

ভাইয়ের জন্মদিনের উপহার: শেভিং কিট

আপনার ভাইয়ের জন্য জন্মদিনে উপহার দিতে পারেন এমন উপহারগুলোর মধ্যে শেভিং কিট খুব ভালো একটি অপশন। ভালোমানের শেভিং রেজার, আফটার শেভ ইত্যাদি মিলিয়ে বিভিন্ন ব্র‍্যান্ডের শেভিং কিট বাজারে পাওয়া যায়। এটি আপনার ভাইয়ের জন্য উপকারী ও স্টান্ডার্ড একটি উপহার হবে এবং সেও নিশ্চয়ই খুশী হবে।

৫. টিশার্ট ও টাই

ভাইয়ের জন্মদিনের উপহার: টিশার্ট

যেকোন ছেলের জন্যই টিশার্ট একটি ভালো ও পছন্দনীয় উপহার। আপনার ভাই এর জন্য তার পছন্দনীয় রঙের টিশার্ট ও তার সাথে মানানসই রঙের টাই সহ তাকে উপহার দিতে পারেন। ফরমাল ড্রেস পরিধানে এ উপহার তার বেশ কাজে দিবে৷ তবে টিশার্ট এর মাপ যেন ঠিকঠাক হয় ও কাপড় ভালোমানের হয় তা খেয়াল রাখবেন। টিশার্টটি চাইলে মাপ অনুযায়ী বানিয়ে নিতে পারেন ভালো দর্জি দ্বারা৷ 

বোনের জন্মদিনের উপহার

১. গ্রুমিং কিট

বোনের জন্মদিনের উপহার: গ্রুমিং কিট

আদরের বোনের জন্য জন্মদিনের শুভেচ্ছা দিলেই কি হবে! বোন এর জন্য আকর্ষনীয় ও সুন্দর একটি উপহার হবে এই গ্রুমিং কিট। এটিতে মূলত ফেসিয়াল প্যাক, ফেশওয়াশ, শ্যাম্পু এসব সৌন্দর্য পরিচর্চার জিনিসপত্র থাকে৷ যেকোন নারীর-ই এই উপহার অত্যন্ত পছন্দ হবে। বোনেদের জন্য তাই গ্রুমিং কিট যথার্থ এক উপহার৷ বিভিন্ন ব্র‍্যান্ডের গ্রুমিং কিট হয়ে থাকে, ভালোমানের গ্রুমিং কিট কোনটি সেটি খোজ নিয়ে তবেই কিনবেন। কোন ব্র‍্যান্ড ভালো হবে এ নিয়ে বোনের মতামত অনুসারেই কিনে দিতে পারেন।  

২. হেয়ার ড্রায়ার

বোনের জন্মদিনের উপহার: হেয়ার ড্রায়ার

আপনার বোনের জন্য বেশ কার্যকর ও সুন্দর একটি উপহার হতে পারে হেয়ার ড্রায়ার৷ স্নানের পর বা অন্যান্য সময়ে চুল শুকাতে এটি ব্যবহার করতে পারবে যে, যা তাকে তৈরি হতে সাহায্য করবে। বিভিন্ন কোম্পানীর হেয়ার ড্রায়ার পাওয়া যায়, এর মধ্যে ভালো মানের যেকোন একটি বাছাই করে উপহার দিতে পারেন। আপনার বোনের এ উপহার নিশ্চয়ই পছন্দ হবে।

৩. চকলেট বক্স

বোনের জন্মদিনের উপহার: চকলেট বক্স 

আপনার বোনের জন্য জন্মদিনের উপহার হিসেবে চকলেট বক্স ও বেশ সুন্দর উপহার। বাজারে বিভিন্ন কোম্পানীর চকলেটের আলাদা গিফট বক্স আকারে পাওয়া যায়৷ সেসব চকলেট মানের দিক দিয়ে উন্নত ও কিছুটা দামী হয়ে থাকে। আপনার বোনের যদি চকলেট খুব পছন্দের খাবার হয়ে থাকে তবে অবশ্যই চকলেট বক্স আপনার বোনের জন্মদিনের একটি দারুন উপহার হতে পারে।

৪. রংতুলি

বোনের জন্মদিনের উপহার: রংতুলি

আপনার বোন যদি শিল্পপ্রেমী হয়ে থাকে তবে তার জন্মদিনে আপনি যেসব উপহার দিতে পারেন তার মধ্যে স্টান্ডার্ড একটি উপহার বিভিন্ন রঙ সংবলিত রংতুলির প্যাক। আপনার বোনের ছবি আঁকার শখ থাকলে তার এ উপহার খুবই পছন্দ হবে। 

৫. কানের দুল

বোনের জন্মদিনের উপহার: কানের দুল

আপনার বোনের জন্য তার জন্মদিনে কানের দুল একটি ভালো উপহার হতে পারে৷ আমাদের দেশে বিভিন্ন ডিজাইনের কানের দুল পাওয়া যায়। জরুরি নয় তা স্বর্নের বা খুব দামী উপাদানের হতে হবে, কাঠের ও খুব সুন্দর কানের দুল বাজারে বাজারে পাওয়া যায়। বর্তমানে সেসব কানের দুল ফ্যাশনের অংশ ও নারীদের খুবই প্রিয়। আপনিও এরকম কানের দুলের সেট বাছাই করে আপনার বোনকে জন্মদিনে উপহার দিতে পারেন। আপনার বোন এ উপহার নিশ্চয়ই খুব পছন্দ করবে। 

স্ত্রীর জন্মদিনের উপহার

১. ফুলের তোড়া ও চিরকুট

স্ত্রীর জন্মদিনের উপহার: ফুলের তোড়া ও চিরকুট

ফুলের তোড়া আপনার প্রিয়তমা স্ত্রীর জন্য সবসময়ই একটি মন ভালো করে দেওয়ার মতো উপহার। ফুলের সুঘ্রাণে যেকারোই মন ভালো হতে বাধ্য। আপনার স্ত্রীর জন্মদিনে গোলাপ বা স্ত্রীর প্রিয় ফুলের তোড়া উপহার দিতে পারেন। যদি সেই ফুলের তোড়ার সাথে একটি ছোট্ট চিরকুটে আপনি তাকে ভালোবাসার কথা সংক্ষেপে লিখে জানান, আপনার স্ত্রী তা খুবই পছন্দ করবেন। 

২. কোন পোষ্য প্রাণী

স্ত্রীর জন্মদিনের উপহার: কোন পোষ্য প্রাণী

আপনার স্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষ্যে তাকে কোন পোষ্য প্রাণী উপহার দিতে পারেন। আপনার স্ত্রীর যদি পাখি পছন্দ হয় তবে কোন পাখি, যদি বিড়াল পছন্দ হয় তবে কোন বিড়াল ঘরে পুষবার জন্য কিনে আনতে পারেন। অনেক পেট শপ রয়েছে এসব ক্রয় করার। আপনার স্ত্রী নিশ্চয়ই এমন একটি উপহার পেয়ে খুব খুশী হবেন। 

৩. গহনা

স্ত্রীর জন্মদিনের উপহার: গহনা

নারীর জন্য গহনা সবসময় আকর্ষনীয় উপহার। আপনার স্ত্রীর জন্মদিনে আপনি তাই তাকে নাক,কান, গলার গহনা, হাতের চুড়ি, আংটি ইত্যাদি উপহার হিসেবে দিতে পারেন।  এটি একটি স্মৃতি হয়ে থাকবে যে জন্মদিন উপলক্ষ্যে এই গহনা তাকে উপহার দিয়েছিলেন। বছরের অন্য সময়ে দেওয়ার চেয়ে তাই জন্মদিন উপলক্ষ্যে দেওয়াটাই বেশি ভালো হবে, আপনার স্ত্রীও অধিক খুশী হবেন।

৪. ছবির ফ্রেম

স্ত্রীর জন্মদিনের উপহার: ছবির ফ্রেম

দেয়ালে ঝুলিয়ে রাখা যায় এমন বড় বড় ফ্রেম পাওয়া যায় বাজারে। একেকটি ফ্রেমে ৬-৭ টি ছবি রাখা যায়। আপনাদের বিবাহিত জীবনের বিভিন্ন সুখকর স্মৃতির ছবি সে ফ্রেমে সাজিয়ে রাখতে পারেন। আপনার স্ত্রী এ উপহারে খুবই খুশী হবেন। ছবির ফ্রেম উপহার দিয়ে আপনার স্ত্রীর পছন্দমত যেসব ছবি নির্বাচন করবে সেগুলো সাজিয়ে রাখলে আরো ভালো হবে। 

৫. টেবিল ল্যাম্প

স্ত্রীর জন্মদিনের উপহার: টেবিল ল্যাম্প

মৃদু সবুজ বা অন্য রঙের বাতির টেবিল ল্যাম্প  আপনার স্ত্রীর জন্মদিনে খুব আকর্ষনীয় উপহার হতে পারে৷ এটি রাতের বেলা ঘরের সৌন্দর্য যেমন বৃদ্ধি করবে, তেমনি ঘরের পরিবেশেও কিছুটা রোমান্টিক ভাব আনবে। টেবিল ল্যাম্পের অনেক রকমের ডিজাইন মার্কেটে পাওয়া যায়, যার ফলে এর আলো কয়েকরকম হয়ে থাকে। আপনার পছন্দ অনুযায়ী আপনি টেবিল ল্যাম্প ক্রয় করে উপহার দিবেন। আলোর রঙ সবুজ হলে তা কিছুটা জোনাকি পোকার আলোর মত মনে হয়, তাই সবুজ রং অনেকে পছন্দ করে বেশি৷ আপনি চাইলে মৃদু অন্য কোন রঙের বাতিও নিতে পারেন।

স্বামীর জন্মদিনের উপহার

১. পারফিউম সেট

স্বামীর জন্মদিনের উপহার: পারফিউম সেট

আপনার স্বামীর জন্মদিনে পারফিউম সেট হতে পারে একটি দারুন উপহার। আপনি আপনার স্বামীর জন্য বিশেষ সুগন্ধির পারফিউম পছন্দ করে তা প্যাক করে তাকে উপহার হিসেবে দিতে পারেন। আপনার স্বামীর নিশ্চয়ই তা পছন্দ হবে। 

২. চাবির রিং

স্বামীর জন্মদিনের উপহার: চাবির রিং

আপনার স্বামীর জন্মদিনে চাবির রিং ও বেশ সুন্দর ও স্টান্ডার্ড একটি উপহার হতে পারে৷ বর্তমানে বিভিন্ন অনলাইন ও অফলাইন শপ কাস্টমাইজড চাবির রিং তৈরি করছে৷ আপনি আপনার পছন্দের ডিজাইনে চাবিং রিং তৈরি করে দিতে পারেন, আপনাদের দুজনের ছবিও যুক্ত করে দিতে পারেন। সুন্দর কাস্টমাইজড চাবির রিং আপনার স্বামীর যেমন কাজে লাগবে তেমনি সে খুশীও হবে।

৩. খোদাই করা শিল্পকর্ম

স্বামীর জন্মদিনের উপহার: খোদাই করা শিল্পকর্ম

আপনাদের দুজনের ছবি কাঠে খোদাই করে এঁকে নেওয়াতে পারেন। সাধারন ছবির ফ্রেমের তুলনায় কাঠের উপর খোদাইকৃত নিজের ছবি আরো অনেক বেশি সুন্দর ও এস্থেটিক দেখায়। চারুকলা শিল্পীদের দিয়ে এ ধরনের একটি কাঠের উপর ছবি বানিয়ে নিতে পারেন৷ এটি একটি খুবই রোমান্টিক উপহার হবে আপনার স্বামীর জন্য।

৪. বিশেষ ক্যালেন্ডার

স্বামীর জন্মদিনের উপহার: বিশেষ ক্যালেন্ডার

আপনার স্বামীর জন্মদিন উপলক্ষ্যে দারুন এক উপহার হতে পারে কাস্টমাইজড ক্যালেন্ডার। বিভিন্ন প্রিন্টিং প্রেস বা লোকাল দোকান থেকেও এটি তৈরি করে নেওয়া যাবে। এই ক্যালেন্ডারে আপনাদের ছবি থাকবে, ক্যালেন্ডারটির ডিজাইন আপনি ঠিক করবেন। এছাড়াও, ক্যালেন্ডারটিতে আপনাদের বিশেষ দিনগুলো যেমন বিবাহবার্ষিকী, জন্মদিন এসব তারিখ মার্ক করা থাকবে। নিজেদের জন্য বানানো এরকম একটি ক্যালেন্ডার উপহার হিসেবে পেয়ে আপনার স্বামী নিশ্চয়ই খুব খুশী হবেন।

৫. মগ

স্বামীর জন্মদিনের উপহার: মগ

আপনাদের দুজনের ছবি প্রিন্ট করিয়ে নিতে পারেন কোন মগের উপর। এতে যতবার মগটি ব্যবহৃত হবে ততবার এদিনের কথা স্মরণ হবে৷ প্রিন্ট করানো ছাড়াও অন্য একরকম মগ বানানো যায়, যাতে গরম পানি/চা ঢাললে কেবল তখনই আপনাদের দুজনের ছবি ফুটে উঠবে, অন্যথায় দেখা যাবেনা। এরকম ম্যাজিক মগ ও আপনি আপনার স্বামীর জন্মদিনে তাকে উপহার দিতে পারেন।

প্রেমিকার জন্মদিনের উপহার

১. লাভ বাস্কেট

প্রেমিকার জন্মদিনের উপহার: লাভ বাস্কেট

আপনার প্রেমিকার জন্মদিনে আপনি তাকে একটি বাস্কেট বা ঝুড়ি ভর্তি তার পছন্দের জিনিসগুলো দিতে পারেন। সেগুলো খুবই সাধারন, কমদামী বস্তুও হতে পারে তবে তা যেন আপনার প্রেমিকার খুব প্রিয় বস্তু হয়। যেমন ধরুন মিকি মাউসের ছোট্ট পুতুল, তার প্রিয় কদম ফুল, তার কোন প্রিয় চকলেট এসব ছোটছোট জিনিস দিয়ে বাস্কেটটি পূর্ণ থাকবে। প্রতিটি উপহারের সাথে ছোট ছোট চিরকুট জুড়ে দিতে পারলে আরো বেশি রোমান্টিক হবে উপহারটি। আপনার প্রেমিকা নিশ্চয়ই এতে খুব খুশী হবেন।

২. অডিও প্লেয়ার

প্রেমিকার জন্মদিনের উপহার: অডিও প্লেয়ার

এটি আপনার প্রেমিকার জন্মদিনের খুব ইউনিক একটি উপহার হবে। আপনি একটি সাধারন এমপি-থ্রি কিংবা আইপড জাতীয় কোন অডিও প্লেয়ার কিনে তাতে আপনার প্রেমিকার প্রিয় গানগুলো দিতে পারেন যা সে অবসরে শুনবে৷ তবে আরো ভালো আইডিয়া হচ্ছে আপনি যদি তার প্রতি আপনার ভাবনাগুলো ভয়েস রেকর্ড করে সেই অডিও প্লেয়ারে ঢুকিয়ে দিন। এটি একপ্রকার অডিও লেটারের মতো হবে। খুবই রোমান্টিক এ উপহারটি আপনার প্রেমিকা অবশ্যই পছন্দ করবে।  

৩. ফোনের কাস্টমাইজড কভার

প্রেমিকার জন্মদিনের উপহার: ফোনের কাস্টমাইজড কভার

বর্তমান যুগে আমরা সবচেয়ে বেশি সময় কাটাই ফোনের সাথে। তাই আপনি আপনার প্রেমিকার জন্মদিন উপলক্ষ্যে তাকে একটি কাস্টমাইজড ফোনের কভার বানিয়ে উপহার দিতে পারেন। এতে তার ছবি থাকতে পারে কিংবা আপনার ঠিক করা অন্য কোন ডিজাইন থাকতে পারে। এর ফলে সে যতবার ফোন হাতে নিবে কভারটির কারনে আপনার কথা ও এ বিশেষ দিবসটির কথা মনে পড়বে। তাই এটি দারুণ একটি উপহার হতে পারে আপনার প্রেমিকার জন্য। 

৪. স্কেচ

প্রেমিকার জন্মদিনের উপহার: স্কেচ

কোন ভালো চিত্রশিল্পী দিয়ে আপনার প্রেমিকার ছবি স্কেচ করিয়ে নিতে পারেন। এরপর সেটা বাধাই করে তাকে জন্মদিনের উপহার হিসেবে দিতে পারেন। সরাসরি ফটো প্রিন্ট করানোর চেয়ে হাতে আঁকা ছবির আবেদন বেশি হবে আপনার প্রেমিকার কাছে। সে এই উপহার পেয়ে নিশ্চয়ই খুশী হবে। 

৫. পুতুল

প্রেমিকার জন্মদিনের উপহার: পুতুল

আপনার প্রেমিকার জন্য জন্মদিনের উপহার হিসেবে পুতুল ও খুব ভালো একটি অপশন। তবে এ পুতুল ঠিক বাচ্চাদের পুতুল নয়, এ ধরনের উপহারের পুতুল কিছুটা ভিন্ন হয়। তা হতে পারে টেডি বিয়ার কিংবা আপনার প্রেমিকার প্রিয় কোন কার্টুন ক্যারেক্টার যেমন Winnie The Pooh এর পুতুল। এরকম পুতুল ও জন্মদিনে আপনার প্রেমিকাকে অত্যন্ত খুশী করবে। 

 প্রেমিকের জন্মদিনের উপহার

১. বিশেষ মূর্হতের চিঠি

 প্রেমিকের জন্মদিনের উপহার: বিশেষ মূর্হতের চিঠি

আপনার প্রেমিকের জন্মদিন উপলক্ষ্যে আপনি তাকে একগুচ্ছ চিঠি পাঠাতে পারেন। প্রত্যেকটা চিঠিতে আলাদা করে শিরোনাম দেওয়া থাকবে, একসাথে সব চিঠি পড়া যাবেনা, নির্দিস্ট মূর্হুতেই কেবল তা পড়া যাবে। যেমন একটি চিঠিতে থাকবে “মন খারাপ হলে এই চিঠি” বা এরকম বিভিন্ন সিচুয়েশন দেওয়া থাকবে। এটি দারুন একটি রোমান্টিক উপহার হবে আপনার প্রেমিকের জন্য।

২. সিন্দুকভর্তি চিরকুট

এখানে সিন্দুক বলতে বিশালাকৃতির কোন রাজা বাদশাহের আমলের সিন্দুক বুঝাচ্ছি না, বরং ছোট্ট শোপিস আকারে কিছু সিন্দুক এর রেপ্লিকা মার্কেটে পাওয়া যায়। এদের কয়েকটিকে লক সিস্টেম ও থাকে। আপনি অনেকগুলো চিরকুট লিখে এই ছোট্ট সিন্দুকে ভর্তি করে আপনার প্রেমিককে জন্মদিনে উপহার দিতে পারেন৷ অনেক দামী উপহারের চেয়ে এই ছোট্ট রোমান্টিক উপহারে সে আরো অনেক বেশি খুশী হবে। 

৩. নিজের হাতের রান্না

প্রেমিকের জন্মদিনের উপহার: নিজের হাতের রান্না

আপনার প্রেমিকের জন্য আপনি তার প্রিয় খাবারটি রান্না করে নিয়ে যেতে পারেন। তার যদি বিরিয়ানি পছন্দ হয় তবে বিরিয়ানি, যদি কাবাব পছন্দ হয় কাবাব ইত্যাদি বানিয়ে তার জন্য নিয়ে যেতে পারেন। একসাথে কোন রোমান্টিক পরিবেশে আপনার হাতের রান্না তার জন্য পরিবেশন করলে সে অত্যন্ত খুশী হবে। তাই তার জন্মদিন উপলক্ষে বেশ ভালো একটি উপহার হতে পারে আপনার নিজ হাতে বানানো তার প্রিয় খাবার। 

৪. স্ক্র‍্যাপবুক

প্রেমিকের জন্মদিনের উপহার: স্ক্র‍্যাপবুক

এটি মূলত একটি ফটো অ্যালবামের মতোই, তবে প্রত্যেক ছবির পাশেই ছোট ছোট বর্ননা লেখা থাকে। আপনি আপনার প্রেমিকের সাথে একসাথে অনেকগুলো ছবি এরকম বই আকারে বাধাই করে অ্যালবামের মতো বানিয়ে তাতে প্রত্যেকটিতে এরকম ছোট ছোট বর্ননা যোগ করতে পারেন। এতে আপনাদের ছবির পিছনের গল্প থাকবে, ব্যক্তিগত অনেক ইচ্ছার কথা থাকবে, অনেক ভবিষ্যত পরীকল্পনা থাকবে। এরকম একটি স্ক্র‍্যাপবুক উপহার হিসেবে খুবই রোমান্টিক। আপনার প্রেমিক নিশ্চয়ই এটি উপহার হিসেবে পেয়ে খুবই খুশী হবে। 

৫. নিজের আঁকা রুমাল

প্রেমিকের জন্মদিনের উপহার: নিজের আঁকা রুমাল

এটি পুরাতন যুগের প্রেমিকারা প্রেমিকদের জন্য খুব শখ করে বানিয়ে উপহার হিসেবে দিতো। রুমালে নিজের পছন্দমতো ডিজাইন সুই সুতা দিয়ে এঁকে প্রেমিকাকে উপহার দেওয়া খুব সাধারন উপহার দেখালেও এর পিছনের আবেগটা অনেক গভীর৷ তাইতো এ যুগেও এটি প্রেমিকের জন্মদিনে অসাধারন একটি উপহার হতে পারে। আপনার হাতে বানানো এ রুমাল পেয়ে নিশ্চয়ই আপনার প্রেমিক খুবই খুশী হবেন।

বন্ধুর জন্মদিনের উপহার

১. প্রিয় দলের জার্সি

বন্ধুর জন্মদিনের উপহার: প্রিয় দলের জার্সি

আপনার বন্ধু যে ফুটবল বা ক্রিকেট দলের ফ্যান, সেই দলের জার্সি নিশ্চয়ই তার কাছে খুব প্রিয় হবে। আপনি তাই আপনার বন্ধুর জন্মদিনে তার প্রিয় দলের জার্সিটিই উপহার হিসেবে দিতে পারেন৷ তবে জার্সির মাপ ঠিকঠাক আছে কিনা ও কাপড়ের কোয়ালিটি কেমন তা খেয়াল রাখবেন। ফুটবল বা ক্রিকেট ভক্ত বন্ধুদের জন্য এটি অন্যতম সেরা একটি উপহার।।

২. শো পিস

প্রেমিকের জন্মদিনের উপহার: শো পিস

ঘরে সাজিয়ে রাখার জন্য বিভিন্ন রকমের শো পিস বাজারে পাওয়া যায়। ওগুলো দেখতে খুবই সুন্দর। এছাড়াও ফ্রেন্ডশিপ নিয়েও নানারকম কাস্টমাইজড শো পিস তৈরি করা যেতে পারে। আপনার বন্ধুকে জন্মদিনে সেসব শো পিস উপহার দিলে তা তার বাসায় এই দিনের স্মৃতি হিসেবে বহুদিন থেকে যাবে ও আপনার কথা স্মরণ করাবে। তাই এটি জন্মদিন উপলক্ষ্যে আপনার বন্ধুর জন্য আপনার তরফ থেকে সুন্দর একটি উপহার হবে। 

৩. স্ন্যাকস প্যাকেজ

বন্ধুর জন্মদিনের উপহার: স্ন্যাকস প্যাকেজ

আপনার বন্ধুর জন্য এটিও মজার একটি উপহার হবে। একটি বড় বাক্সে তার প্রিয় চিপস, কোক, বিস্কুট এসব ভর্তি করে তা র‍্যাপিং করে উপহার হিসেবে দিতে পারেন। যেহেতু এসব আপনার বন্ধুর খুবই প্রিয় তাই সে নিশ্চয়ই খুব খুশী হবে। চাইলে আপনি তার জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়ে ছোট একটি চিরকুট ও এ বাক্সের সাথে দিতে পারেন। 

৪. ঘড়ি

বন্ধুর জন্মদিনের উপহার: ঘড়ি

আপনার বন্ধুর জন্মদিনে তার জন্য ভালোমানের একট হাতঘড়ি একটি স্টান্ডার্ড উপহার হবে। বিভিন্ন ব্র‍্যান্ডের বেশ ভালো ভালো ঘড়ি বাজারে পাওয়া যায়, আপনার বন্ধুর ভালো লাগবে এরকম একটি ঘড়ি তাকে জন্মদিনের উপহার হিসেবে দিতে পারেন। এটি তার বেশ কাজে আসবে এবং এ উপহার পেয়ে সে খুব খুশী হবে। 

৫. বোতলের আলোকসজ্জা

বন্ধুর জন্মদিনের উপহার: বোতলের আলোকসজ্জা

এটি আপনার প্রিয় বন্ধুর জন্য খুবই সুন্দর একটি উপহার হবে। মূলত একটি স্বচ্ছ কাঁচের বোতল যাতে রঙ দিয়ে কিছু আঁকিবুঁকি করা থাকবে, তাতে আলোকসজ্জার ছোট ছোট নিয়ন বাতি ( স্থানীয়ভাবে মরিচ বাতিও বলে ) তারসহ ঢুকানো থাকবে। লাইট অফ করে সেই বাতিগুলো জ্বালালে বোতলটিকে খুবই সুন্দর দেখায়। আপনার বন্ধু এ উপহারটিকে নিঃসন্দেহে খুবই পছন্দ করবে। 

বাচ্চাদের জন্মদিনের উপহার

১. খেলনা গাড়ি

বাচ্চাদের জন্মদিনের উপহার: খেলনা গাড়ি

খেলনা গাড়ি সকল বাচ্চাদের কাছেই খুব পছন্দের। এটি রিমোট কন্ট্রোল গাড়ি হতে পারে বা সাধারন খেলনা গাড়িও হতে পারে। তবে বাহ্যিকভাবে দেখতে যাতে খুব আকর্ষনীয় হয় সেদিকে খেয়াল রাখবেন, কারন শিশুরা তা দেখেই বেশি আকৃষ্ট হয়। জন্মদিন উপলক্ষ্যে এ উপহার শিশুরা নিশ্চয়ই খুব পছন্দ করবে।

২. লেখালেখির ছোট বোর্ড

বাচ্চাদের জন্মদিনের উপহার: লেখালেখির ছোট বোর্ড

এটি বাচ্চাদের জন্য খুব শিক্ষনীয় একটি উপহার হবে। এটি বাজারে একসাথেই বাচ্চাদের বোর্ড হিসেবে প্যাকেজ আকারে কিনতে পাওয়া যায়। এতে মূলত একটি সাদা বোর্ড ও একটি বিশেষ পেন্সিল থাকে, যা দিয়ে বাচ্চারা বোর্ডে লেখালেখি করতে পারে। এর সুবিধা হচ্ছে বোর্ডের লেখাটি সহজেই বিশেষ হাতল টান দিয়ে মুছে ফেলা যায় ও বারবার লেখা যায়। বাচ্চারা তাই নতুন নতুন শব্দ শেখা ও লেখালেখি এই বোর্ডে অনুশীলন করতে পারে। জন্মদিনে তাই বাচ্চাদের জন্য এটি আদর্শ একটি উপহার।

৩. ব্যাটারিচালিত রোবট

বাচ্চাদের জন্মদিনের উপহার: ব্যাটারিচালিত রোবট

বর্তমানে বাচ্চাদের জন্য বাজারে ছোট ছোট ব্যাটারিচালিত রোবট পাওয়া যায়। এগুলো শিশুদের খুবই পছন্দের খেলনা। এসব রোবটগুলো ব্যাটারির সাহায্যে হাটতে পারে এমনকি নাচ ও করতে পারে। পাশাপাশি রোবটে থাকা বিভিন্ন লাইট শিশুদের আরো আকর্ষন করে। তাই বাচ্চাদের জন্মদিনে এরকম একটি রোবট আপনি উপহার হিসেবে দিতে পারেন।

৪. কার্টুনের স্টিকারযুক্ত ওয়াটারপট

বাচ্চাদের জন্মদিনের উপহার: কার্টুনের স্টিকারযুক্ত ওয়াটারপট

বাচ্চারা স্পাইডারম্যান, সুপারম্যান, টম এন্ড জেরি এসব কার্টুনের অনেক বেশি ভক্ত থাকে। তাই তারা স্কুলে যে পানির বোতল নিয়ে যায়, তাতে যদি তাদের প্রিয় কার্টুনের স্টিকার লাগানো থাকে বা কার্টুনটি আঁকা থাকে তবে তাদের আনন্দ অনেক বেড়ে যায়। বাজারে এরকম অনেক ধরনের ওয়াটারপট ই কিনতে পাওয়া যায়। বাচ্চার প্রিয় ক্যারেক্টারের স্টিকারযুক্ত ওয়াটারপট তাই তার জন্মদিনের খুবই সুন্দর একটি উপহার হবে যা সে অত্যন্ত পছন্দ করবে। 

৫. কমিক বই

বাচ্চাদের জন্মদিনের উপহার: কমিক বই 

শিশুদের সাধারনত কার্টুন খুবই পছন্দের হয়৷ তাই তাদের যদি এসব কার্টুন চরিত্রের রঙিন ছবি আঁকা কমিক বই দেওয়া হয় তারা তা খুবই পছন্দ করে। বাচ্চাদের এসব কমিক বইতে গল্প শিশুতোষ ও রঙিন ও আকর্ষনীয় ছবির প্রাধান্য যাতে বেশি থাকে এরকম কমিক বই বাচ্চাদের জন্য ক্রয় করে তাদের উপহার হিসেবে দিতে পারেন। জন্মদিনে এমন উপহারে বাচ্চারা খুবই খুশী হবে।

শেষকথা 

জন্মদিনে সবাই চায় নিজের প্রিয়জনদের উপহার দিয়ে খুশী করতে। এ উপহার যে সবসময় খুব দামী হতে হবে এমন কোন কথা নেই৷ আজকের এ লেখাটিতে তাই আপনাদের দামী উপহারের পাশাপাশি কম খরচেও কিভাবে দারুন কিছু আইডিয়া ব্যবহার করে উপহার দিয়ে আপনার প্রিয়জনের জন্মদিনট স্মরণীয় করে রাখতে পারেন তা বর্ননা করা হয়েছে৷ তাই আপনার বাজেট, আপনার ও আপনার প্রিয়জনের রুচির সাথে মিল রেখে এসব আইডিয়াগুলোর যেকোনটি নির্বাচন করে জন্মদিনে উপহার হিসেবে দিতে পারেন। নিশ্চয়ই এসব উপহার পেয়ে আপনার প্রিয়জন খুবই খুশী হবেন।

Leave a Reply

Back to top button